এনআইডি কার্ড সঠিক নিয়ম অনুযায়ী ডাউনলোড | এনআইডি ওয়ালেট

এনআইডি কার্ড সঠিক নিয়ম অনুযায়ী ডাউনলোড | এনআইডি ওয়ালেট

জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য নিবন্ধন করার পর যারা এখন পর্যন্ত তা হাতে পাননি তাদের উদ্দেশ্যে অনলাইনের মাধ্যমে কিভাবে এন আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে হয় সে প্রসঙ্গে আলোচনা করতে চলেছি। তাই আপনার এনআইডি কার্ড সঠিক নিয়ম অনুযায়ী ডাউনলোড করতে হলে আমাদের দেখানো তথ্যগুলো অনুসরণ করতে হবে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে নিজস্ব একটা একাউন্ট তৈরি করার মাধ্যমে খুব সহজেই এনআইডি কার্ডের পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে নিয়ে যেকোনো জরুরী কাজে ব্যবহার করতে পারবেন।

আমরা সকলেই অবগত আছি যাই জাতীয় পরিচয় পত্র ১৮ বছর বয়স হলেই তথ্য নিবন্ধন এর মাধ্যমে সংগ্রহ করতে হয়। কিন্তু অনেকেই জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য নিবন্ধন করার পরেও এখন পর্যন্ত স্মার্ট এনআইডি কার্ড হাতে পাবে বলে অপেক্ষা করে বসে আছে। তাই সেই সকল বিষয় থেকে আপনি যদি অনলাইন এর নিয়ম অনুসরণ করে এটার কপি সংগ্রহ করতে চান তাহলে সবচাইতে ভালো হবে। তাছাড়া এই কপি আপনারা যদি জাতীয় নির্বাচন কমিশনের যে উপজেলা ভিত্তিক অফিস রয়েছে সেখান থেকে সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাদের ২৩০ টাকা খরচ পড়বে।

তবে যাই হোক দৈনন্দিন জীবনে এনআইডি কার্ডের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। পাসপোর্ট তৈরি থেকে শুরু করে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজে এনআইডি কার্ডের তথ্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে।তাই তথ্য নিবন্ধন করে শুধু বসে থাকলে হবে না বরং এটার কপি সংগ্রহ করতে হবে এবং অনলাইনের মাধ্যমে ব্যবহার করলে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এটা সংগ্রহ করা যাবে। তাই এন আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের সেবা সংক্রান্ত যে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট রয়েছে সেটার লিংক হল
https://services.nidw.gov.bd/nid-pub/ ।

এই লিংক ব্যবহার করে আপনারা যখন অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে চলে যেতে পারছেন তখন সেখানেই আপনাদের জন্য যে সকল অপশন দেওয়া আছে তার মধ্যে প্রথম অপশনটি ব্যবহার করবেন। অর্থাৎ আপনার এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য সেখানে একটি একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং তথ্য যেগুলো লাগবে সেগুলো এখানে বুঝিয়ে দেওয়া হলো। প্রথমত আপনারা অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আপনার এনআইডি কার্ডের নাম্বার আগে থেকে সংগ্রহ করতে হবে অথবা তথ্য নিবন্ধন করার সময় যে ভোটের ফরমের নাম্বার প্রদান করেছিল সেটা ব্যবহার করতে হবে।

যদি উপরের উল্লেখিত দুইটি তথ্যের মধ্যে কোন একটা তথ্য প্রদান করতে ব্যর্থ হয়ে থাকেন তাহলে আপনাদের এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করা সম্ভব হবে না। তাই যেকোনো মূল্যে এটা সংগ্রহ করতে হবে এবং প্রথম ঘরেই সেটা প্রদান করে নিচে গিয়ে আপনাদের জন্ম তারিখ প্রদান করতে হবে। সঠিকভাবে জন্ম তারিখ দিয়ে দেওয়ার পরে সেখানে যে ক্যাপচা কোড দেখানো হচ্ছে সেটা বুঝে নিয়ে ফাঁকা ঘরে বসিয়ে দেবেন। এরপরে যারা এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন তার ঠিকানা সংক্রান্ত তথ্য ধাপে ধাপে অপশন এর মাধ্যমে নির্বাচন করতে হবে এবং পরবর্তী পেজে চলে যেতে হবে।

পরবর্তী পেজে গেলে আপনাদেরকে একটি মোবাইল নাম্বার দেখানো হবে এবং তথ্য নিবন্ধনের সময় মোবাইল নাম্বার আপনারাই প্রদান করেছিলেন। সেই মোবাইল নাম্বারে একটি এসএমএস যাবে এবং সেই এসএমএস এর মাধ্যমে ছয় ডিজিটাল ওটিপি কোড সংগ্রহ করার ব্যবস্থা থাকলে বার্তা পাঠান অপশনটিতে ক্লিক করবেন। আর যদি এসএমএস গেলে তা সংগ্রহ করার কোন উপায় না থাকে তাহলে আপনাদেরকে পূর্ববর্তী পেযে ফিরে আসতে হবে অথবা নাম্বার পরিবর্তন করে নতুন নাম্বারে এসএমএস নিতে হবে।

এরপরে এনআইডি ওয়ালেট ডাউনলোড করতে হবে এবং যার এন আই ডি কার্ড ডাউনলোড করবেন তার মুখমন্ডল চিহ্নিত করনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। এভাবে আপনারা খুব সহজে প্রত্যেকটি ধাপ সম্পন্ন করে যখন একটা অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে পারছেন তখন আপনাদের ছবি সহকারে বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপন করা হবে। প্রকৃতপক্ষে এই নিয়ম অনুসরণ করেই এনআইডি কার্ডের তথ্য সংশোধন করার আবেদন করা যায় এবং আইডি কার্ড ডাউনলোড করা যায়। তাই আপনার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য নিচের দিকে যেতে হবে এবং সেখানকার ডাউনলোড অপশন এ ক্লিক করলেই এটার পিডিএফ ফাইল সহজ নিয়মে ডাউনলোড করতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *