অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন

অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন

ভোটার তথ্য নিবন্ধন করার পরেও এখন যদি আইডি কার্ড হাতে না পেয়ে থাকেন তাহলে অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন। অনলাইন থেকে আইডি কার্ড সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে কোন নিয়ম রয়েছে এবং কোন নিয়ম অনুসরণ করলে এটা সবচাইতে সুবিধা জনক হবে তা আজকের এই পোস্টে আলোচনা করা হবে।

আপনাদের উদ্দেশ্যে আমাদের ওয়েবসাইটে অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করার নিয়মাবলী জানিয়ে দেওয়া হবে এবং এই ক্ষেত্রে সঠিক নিয়ম জানিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে আপনাদের উপকৃত করা হবে। ভোটার আইডি কার্ডের অভাবে যারা গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো নিজের নামে সম্পাদন করতে পারছেন না তারা আজকে আমাদের ওয়েবসাইটের দেখানোর নিয়ম অনুসরণ করে আইডি কার্ডের পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে নিবেন এবং যেকোনো মুহূর্তে যে কোন কাজে এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

আপনি যখন একজন বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে যাবেন তখন আপনার জন্য ভোটার আইডি কার্ডের মাধ্যমে পরিচয় প্রদান করা গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। সাধারণত ভোটার আইডি কার্ড না তৈরি হওয়া পর্যন্ত আপনি জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো সম্পাদন করতে পারবেন। কিন্তু ১৮ বছর বয়স পূর্ণ হলে আপনার এই জন্মনিবন্ধন সনদের পরিবর্তে ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করার ক্ষেত্রে গুরুত্ব প্রদান করা হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি যদি ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার অথবা ভোটার আইডি কার্ড বিভিন্ন কাজে প্রদর্শন করতে না পারেন তাহলে হয়তো অনেক কাজের ক্ষেত্রে পিছিয়ে থাকেন বা সেই সুবিধা গ্রহণ করতে পারেন না।

তাই আপনার নিজের ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন থেকে সংগ্রহ করার জন্য আপনাদেরকে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের যে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট রয়েছে সেখানে প্রবেশ করতে হবে। তবে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরেও আপনাকে সেখান থেকে এনআইডি সার্ভিস এর একটি অফিসিয়াল ওয়েব সাইটে নিয়ে যাওয়া হবে। তবে এভাবে না গিয়ে আপনারা যদি সরাসরি অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে চান তাহলে আপনাদেরকে বলব যে https://services.nidw.gov.bd/nid-pub/ আপনারা অবশ্যই এই লিংক কপি করে নিবেন। এই লিংক ব্যবহার করার মাধ্যমে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট যখন প্রবেশ করতে পারবেন তখন আপনার জন্য ভোটার আইডি কার্ডের অনলাইন কপি ডাউনলোড করা অনেক সুবিধাজনক হবে।

অনলাইন থেকে আপনার ভোটার আইডি কার্ড সংগ্রহ করার জন্য আপনারা এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে হোমপেজে যে রেজিস্টার করুন অপশন রয়েছে সেখানে ক্লিক করবেন। পরবর্তী পেজে আপনাকে বেশ কিছু তথ্য ইনপুট করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হবে। প্রথমে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার অথবা ভোটার তথ্য নিবন্ধনের ফরমের নাম্বার প্রদান করবেন।

তবে এই দুইটি তথ্যের ভেতরে কোন তথ্য যদি প্রদান করতে ব্যর্থ হন তাহলে ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন থেকে ডাউনলোড করা সম্ভব হবে না। এর পরে আপনাকে ওয়েবসাইটের প্রথম পেজের কাজ সম্পন্ন করে দ্বিতীয় পেজে যেতে হবে এবং সেখানে আপনাকে ঠিকানা সংক্রান্ত তথ্য অপশনের মাধ্যমে পূরণ করার সুযোগ প্রদান করা হবে।

এখন আপনাকে যে মোবাইল নাম্বার প্রদর্শন করানো হবে সেই মোবাইল নাম্বারে যদি ওটিপি কোডের মেসেজ নিতে চান তাহলে বার্তা পাঠান অপশনে ক্লিক করবেন। আর যদি সেই নাম্বার পরিবর্তন করার সুযোগ পেতে চান তাহলে পরিবর্তন করে ওটিপি কোডের মেসেজ নিয়ে নিতে পারবেন। তবে অনলাইন থেকে নিজের ভোটার আইডি কার্ড সংগ্রহ করার জন্য সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এনআইডি ওয়ালেট নামক সফটওয়্যার এর সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করা।

এই সফটওয়্যার ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনার মুখমণ্ডল এমন ভাবে ক্যামেরার সামনে ধরতে হবে যা সফটওয়্যার এর ভেতরে প্রবেশ করলেই প্রতিটি চিহ্নের মাধ্যমে বুঝিয়ে দেওয়া হবে। আপনারা অবশ্যই সেই মোতাবেক প্রত্যেকটি কাজ সম্পন্ন করলে একটি প্রোফাইল ওপেন করার সুযোগ প্রদান করা হবে। আর তখন আপনি আপনার নিজের প্রোফাইল থেকে আপনার এনআইডি কার্ড যতবার খুশি ততবার ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করার ক্ষেত্রে কোন সমস্যা মনে করলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করলে আমরা আপনাদেরকে সেই সমস্যার সমাধান প্রদান করব।

কিভাবে অনলাইন থেকে আইডি কার্ড সংগ্রহ করবেন 

অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করার নিয়ম যদি জানতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটের দেখানোর নিয়ম আজকে আপনাদেরকে সেই দিকনির্দেশনা প্রদান করবে। আপনারা যখন অনলাইন থেকে নিজেদের ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করে নিয়ে সেটা নিজেদের প্রয়োজনে ব্যবহার করবেন তখন সেটা আপনার জন্য সবচেয়ে বেশি সুবিধা জনক হবেন।

একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে আপনারা অনলাইন থেকে নিজেদের ভোটার আইডি কার্ড সংগ্রহ করে নিবেন এবং সেটা যে কোন সময় আপনার মোবাইল ফোন খুলে নাম্বার সহ অনুলিপি ব্যবহার। যেহেতু ভোটার আইডি কার্ড প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে কাজে লাগে এবং বাইরে যাওয়ার পরে আমরা যখন এটা বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যবহার করি তখন আমাদের জন্য এটা ফোনে পিডিএফ ফাইল আকারে থাকলে ব্যাপক সুযোগ সুবিধা প্রদান করে থাকে।

তবে আপনারা যারা ভোটার আইডি কার্ডের তথ্য সংগ্রহ থেকে শুরু করে ভোটার আইডি কার্ডের তথ্য সংশোধনের বিস্তারিত তথ্য জানতে চান তাদের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে প্রত্যেকটি টপিকের উপরে আলাদা আলাদা পোস্ট করা হয়েছে। তাই আপনারা যেহেতু আজকে অনলাইন থেকে আপনাদের ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম জানতে এসেছেন যেহেতু আপনাদেরকে আমরা অন্য বিষয়ে তথ্য প্রদান না করে এটি কিভাবে ডাউনলোড করতে হবে সেই নিয়ম জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব। ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য আপনাদের উদ্দেশ্যে নিচে এটির ওয়েবসাইটের লিংক প্রদান করা হলো।

ভোটার আইডি কার্ডের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট যেন চিনেন না অথবা কোথায় গিয়ে ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন থেকে ডাউনলোড করতে হয় তা বুঝতে পারছেন না তারা https://services.nidw.gov.bd/nid-pub/ এই ওয়েবসাইটের লিংক এখানে কপি করে নিন এবং ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। প্রত্যেকটি ব্যক্তিকে আলাদা আলাদা ভাবে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য একটি নির্দিষ্ট প্রোফাইল ওপেন করতে হবে। প্রোফাইল ওপেন করার ক্ষেত্রে যে সকল ধাপ রয়েছে সে সকল ধাপ আপনাদেরকে প্রত্যেকটি মেনে চলতে হবে।

আপনি যখন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন তখন আপনাকে নির্দিষ্ট মোবাইল নাম্বার থেকে শুরু করে ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে। তাছাড়া এনআইডি ওয়ালেট সহ যাবতীয় কাজ আপনাদেরকে খুব সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে হবে। তবে যাই হোক উপরের উল্লেখিত ওয়েবসাইটে যখন আপনারা প্রবেশ করবেন তখন আপনাদেরকে প্রোফাইল ওপেন করার জন্য রেজিস্টার করুন অপশনে ক্লিক করতে হবে। সেখান থেকে আপনাদের আসল কাজ শুরু হয়ে যাবে এবং প্রথমত আপনারা জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার প্রদান করবেন।

কেউ যদি জাতীয় পরিচয় পত্র হাতে না পেয়ে থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনার ভোটার তথ্য নিবন্ধন করার সময় যে স্লিপ প্রদান করেছিল সেখান থেকে সিরিয়াল নম্বর সংগ্রহ করুন এবং ওয়েব সাইটে প্রবেশ করান। এরপরে আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হলো যে আপনি অবশ্যই ওয়েবসাইটে যে সকল বাংলা তথ্য পূরণ করার কথা বলা হয়েছে সেগুলো পূরণ করবেন। এরপরে আপনাদের কে ধাপে ধাপে প্রত্যেকটি কাজ সম্পন্ন করে যখন প্রোফাইল ওপেন করা হয়ে যাবে তখন আপনারা অবশ্যই নিজস্ব প্রোফাইলে প্রবেশ করবেন। তারপরে সেখানে ডাউনলোড অপশনে গিয়ে আপনারা খুব সহজে তা ডাউনলোড করতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *